fbpx
Home / Uncategorized / নিম্ন রক্তচাপ এই ৩টি খাবার শুধু আপনার জন্য

নিম্ন রক্তচাপ এই ৩টি খাবার শুধু আপনার জন্য

রক্তপাতের কথা যখনই আসে তখন উচ্চ রক্তচাপের ব্যাপারে অনেক কথা বলা যায় কিন্ত কম রক্তচাপের বিষয়ে খুব বেশি কিছু বলা হয় না. রক্তচাপের মাত্রার হঠাৎ ডুব দ্বারা চিহ্নিত হয় নিম্ন রক্তচাপ. ধারণাগত রক্তচাপ রিডিং প্রায় ১২০/৮০ মিমি Hg থাকা উচিত. কিছু বিশেষজ্ঞরা মানেন নিম্ন রক্তচাপ যখন ৯০মিমি Hg সিস্টোলিক বা ৬০মিমি Hg ডায়স্টোলিকের চেয়ে কম রিডিং. মাথা ঘোরা, দুর্বলতা, বমি বমি ভাব এবং অস্পষ্ট দৃষ্টি নিম্ন রক্তচাপের লক্ষন. নিম্ন রক্তচাপ হওয়ার অনেক কারণ হতে পারে যেমন ডিহাইয়েড্রেশন, রক্তাল্পতা, চিন্তা, থাইরয়েড, রক্তপাত ইত্যাদি.আপনার রক্তচাপ স্বাভাবিক সীমার মধ্যে রাখার জন্য কিছু খাবার অন্তর্ভুক্ত করা আবশ্যক.১. জল-হাইড্রেশন রক্তের পরিমাণ হ্রাস করে যার ফলে রক্তচাপ কমে আসে. ব্যায়াম করার সময় বিশেষভাবে নিজেকে জলয়োজিত রাখা আবশ্যক. প্রচুর পরিমাণে জল খাবেন এবং নারকেল জলের সেবন করা অত্যন্ত লাভদায়ক.২. কফি-ক্যাফিন অস্থায়ীভাবে রক্তচাপ বাড়াতে সাহায্য করে. যদি আপনার রক্তচাপ হঠাৎ কমে আসে এবং আপনার যদি মাথা ঝিম ঝিম করে তাহলে একটি কাপ চা ও কফি লাভকারী. ক্যাফিন আপনার কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেম কে উদ্দীপ্ত করে এবং হার্ট রেট কে ব্রিধি করে রক্তচাপ কে পুনরুদ্ধার করতে সাহায্য করে.৩. তুলসী পাতা-প্রতিদিন সকালে পাঁচ থেকে ছয়টি তুলসী পাতা চিবানো আপনার রক্তচাপের মাত্রা কে পুনর্বহাল করতে সহায়ক. পরামর্শক পুষ্টিবিদ ডাঃ রুপালি বলছেন, তুলসীর পাতাগুলিতে উচ্চ মাত্রার পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ভিটামিন সি থাকে, যা আপনার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করতে পারে. তুলসী পাতার মধ্যে ইগেনোল নামে পরিচিত এন্টি অক্সিডেন্ট পাওয়া যায় যে আপনার রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখে এবং কলেস্টেরল এর মাত্রা কমাতে সহায়তা করে.

About oneworld

Check Also

মা-বাবার রক্তের গ্রুপ একই হলে সন্তান জন্মে কোনো সমস্যা হয় কী?

প্রশ্ন: মা-বাবার রক্তের গ্রুপ একই হলে সন্তান জন্মে কোনো সমস্যা হয় কী? উত্তর: অনেকেরই ধারণা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *